দুর্নীতি কমাতে সব ব্যবস্থা নেওয়া হবে: প্রধান বিচারপতি

10

দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নেবেন বলে জানিয়েছেন নবনিযুক্ত প্রধান বিচারপতি ওবায়দুল হাসান। তিনি বলেছেন, আমরা আপিল ও হাইকোর্ট বিভাগের সব বিচারপতি মিলে যদি একসঙ্গে উদ্যোগ নেই তাহলে বিচারাঙ্গনের দুর্নীতি অপসারণ করা কঠিন কোনো কাজ হবে না। শতভাগ না পারলেও অনেকাংশে আমরা সফল হতে পারব। দুর্নীতি নিশ্চয়ই কমবে এবং দুর্নীতির বিরুদ্ধে আমরা সবাই জিরো টলারেন্সে বিশ্বাস করি।

মঙ্গলবার (১২ সেপ্টেম্বর) দেশের ২৪তম প্রধান বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ পাওয়ার পর সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে তিনি একথা বলেন।

প্রধান বিচারপতি বলেন, দুর্নীতি কমানোর জন্য যেসব ব্যবস্থা নেওয়া প্রয়োজন যেসব ব্যবস্থা নেওয়া হবে। প্রয়োজনে গণমাধ্যমকর্মৗদের সঙ্গেও কথা বলে ঠিক করব। সাংবাদিকরা সমাজের প্রতিবিম্ব। আপনারা যে রিপোর্ট করেন সেই রিপোর্টের মাধ্যমে মানুষ জানতে পারে কোথায় দুর্নীতি হচ্ছে। সাংবাদিকদের সহযোগিতা লাগবে।

বিচার বিভাগ নিয়ে পরিকল্পনার বিষয়ে প্রধান বিচারপতি ওবায়দুল হাসান বলেন, বিচার বিভাগ নিয়ে বাংলাদেশের মানুষের আগ্রহ আছে। বিচার প্রার্থী মানুষদের প্রতিদিন আমাদের আদালতের বারান্দায় ঘোরাফেরা করতে হয়। আপনারা জানেন বিপুল সংখ্যক মামলা আদালতে পেন্ডিং আছে। আমার পরিকল্পনা হবে যতদ্রুত সম্ভব মামলাজট কীভাবে কমানো যায় সে ব্যাপারে আমি সচেষ্ট থাকব। তবে একটি কথা বলতে পারি, আমার পূর্বসূরী এখনও যিনি মাননীয় প্রধান বিচারপতি বাংলাদেশের বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী। তিনি অত্যন্ত সুন্দর উদ্যোগ নিয়েছিলেন। সেই উদ্যোগ অবশ্যই আমি অনুসরণ করব এবং এর আগেও যারা প্রধান বিচারপতি ছিলেন, যারা সুপ্রিম কোর্ট নিয়ে এখনও ভাবেন, তাদের সঙ্গে পরামর্শ করে আমি আমার সময়টা অতিবাহিত করব। এছাড়া আমার সঙ্গে আপিল বিভাগে যারা বিচারপতি আছেন তারা সবাই খুব দক্ষ বিচারক। তাদের সঙ্গে পরামর্শ করে বিচারকাজ পরিচালনা করব।

আইনজীবীদের উদ্দেশে দেশের ২৪তম প্রধান বিচারপতি বলেন, আইনজীবীদের কাছে আশা করব আদালতের প্রতি তারা যেন যথাযথ সম্মান প্রদর্শন করেন। আদালতের কার্যক্রমকে এগিয়ে নেওয়ার জন্য তারা যেন অফিসার অব দ্য কোর্ট হিসেবে তাদের দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করেন। আমি যেহেতু আইনজীবী ছিলাম সেহেতু আমি জানি অনেক ভালো আইনজীবী আছেন যারা বিচার বিভাগ নিয়ে চিন্তা করেন। আমি প্রয়োজনে তাদের সঙ্গেও কথা বলে বিচার বিভাগের কল্যাণের জন্য কাজ করব।

আপিল বিভাগের জ্যেষ্ঠ বিচারপতি ওবায়দুল হাসানকে দেশের ২৪তম প্রধান বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি। রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে আইন মন্ত্রণালয়।