সোনারগাঁওয়ে মাসব্যাপী লোককারুশিল্প মেলা ও লোকজ উৎসব শুরু

16

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি: বাংলার প্রাচীন রাজধানী নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে মাসব্যাপী ‘লোককারুশিল্প মেলা ও লোকজ উৎসব ২০২৪’ আজ শুরু হয়েছে।

বাংলাদেশ লোক ও কারুশিল্প ফাউন্ডেশনের আয়োজনে নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য আব্দুল্লাহ্-আল-কায়সার প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে ঐতিহ্যবাহী এ মেলার শুভ উদ্বোধন করেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব খলিল আহমদ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাংসদ আব্দুল্লাহ্ আল কায়সার বলেন, বাংলার প্রাচীন রাজধানী সোনারগাঁও সারাবিশ্বে সুপরিচিত লোকজ ঐতিহ্যের কারণে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর স্মৃতিধন্য সোনারগাঁওকে বিশ্বের সামনে আরও আকর্ষণীয় করে তুলে ধরতে যা যা করার দরকার তার সবই করা হবে। তিনি বলেন, শান্তিপ্রিয় সোনারগাঁওয়ের মানুষ উন্নয়ন চায়। আগামীদিনে সকলের মিলনমেলা হিসাবে এ স্থানকে প্রতিষ্ঠিত করতে চাই।

নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য বলেন, সোনারগাঁও বাংলাদেশের অন্যতম আকর্ষণীয় পর্যটন কেন্দ্র। দেশি-বিদেশি পর্যটকরা যাতে এখানে এসে অপ্রীতিকর অবস্থা ও বিড়ম্বনার শিকার না হন, সেদিকে লক্ষ্য রাখার জন্য দলীয় নেতাকর্মীসহ সর্বস্তরের জনগণের প্রতি আহবান জানাই। সাংসদ এসময় অপ্রীতিকর ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের আইনের আওতায় আনা হবে মর্মে হুঁশিয়ারি দেন।

সভাপতির বক্তব্যে সংস্কৃতি সচিব খলিল আহমদ বলেন, লোকজ ঐতিহ্য ও শিল্পের উন্নয়নে বাংলাদেশ লোক ও কারুশিল্প ফাউন্ডেশন নিরলস কাজ করে যাচ্ছে। মাসব্যাপী লোককারুশিল্প মেলা ও লোকজ উৎসবের মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে- সারাদেশের কারুশিল্পীরা এ মেলায় এসে নিজ হাতে কারুশিল্প পণ্য তৈরি, প্রদর্শন ও বাজারজাত করবে। এর মাধ্যমে কারুশিল্পের প্রসারসহ এ সেক্টরে নতুন উদ্যোক্তা তৈরি হবে। তিনি বলেন, কারুশিল্প পণ্য তৈরির কলাকৌশল অপরিমেয় সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের অন্তর্ভুক্ত। ২০১৭ সালে সিলেটের শীতলপাটি বয়নশিল্প এবং সম্প্রতি ঢাকার রিকশা ও রিকশাচিত্র ইউনেস্কো’র অপরিমেয় সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য হিসাবে স্বীকৃতি পেয়েছে। সংস্কৃতি সচিব বলেন, বিভিন্ন কারুশিল্প পণ্য তৈরির কলাকৌশলকে ডকুমেন্টশন করা হবে এবং পরবর্তীতে ইউনেস্কো’র অপরিমেয় সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য হিসাবে অন্তর্ভুক্তির লক্ষ্যে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে প্রেরণ করা হবে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তৃতা করেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (উন্নয়ন ও পরিকল্পনা) মো: ইমরুল চৌধুরী, বাংলাদেশ ট্যুরিস্ট পুলিশের ঢাকা রিজিয়নের পুলিশ সুপার মো: নাইমুল হক, নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মো: নূরুন্নবী ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শেখ বিল্লাল হোসেন, সোনারগাঁও উপজেলা চেয়ারম্যান এডভোকেট সামসুল ইসলাম ভূঁইয়া ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ ইব্রাহিম এবং বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সোনারগাঁও উপজেলা কমান্ডের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার ওসমান গণি। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ লোক ও কারুশিল্প ফাউন্ডেশনের পরিচালক কাজী নূরুল ইসলাম।

আলোচনা সভা শেষে প্রধান অতিথিসহ অন্যান্য অতিথিবৃন্দ মেলা পরিদর্শন করেন। পরে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়।