মমতাজকে ভোট দেননি তার তিন বোন

34

এমপি হয়েই তিন বোনকে আর পরিচয় দেন না মমতাজ। সেজন্য তাকে ভোট দেননি তার তিন বোন। মমতাজের বোনরা তার প্রতিপক্ষের নির্বাচন করেছেন। সেই তিন বোন হলেন- রেহানা, জাহানারা ও শাহনাজ বেগম।

বোনদের অভিযোগ, মমতাজ এমপি নির্বাচিত হওয়ার পর বিভিন্ন আচার অনুষ্ঠানে উপস্থিত হলেও তিনি তাদের সাথে অশোভন আচরণ করেন। এমনকি পৈতৃক সম্পত্তি থেকে বঞ্চিত করার অভিযোগও করেছেন তারা।

মমতাজের এক বোন বলেন, আমাদের মা দু’জন হলেও বাবা তো এক। কিন্তু আমরা খেয়ে আছি নাকি না খেয়ে আছি বা কী অবস্থায় আছি কখনো জিজ্ঞেসও করেননি।

আরেক বোন বলেন, প্রতিপক্ষের নির্বাচন করায় আমাদের ওপর হুমকি আসছে আমাদেরকে দেখে নেবে। আমাদেরকে নির্যাতন করবে, বাড়িঘর থেকে বের করে দেবে- যদি এমপি হয়।

নির্বাচনের আগে সম্প্রতি এক সভায় মমতাজের তিন বোন তাকে সমর্থন না জানিয়ে সমর্থন জানান ট্রাক প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী দেওয়ান জাহিদ আহমেদ টুলুকে।

এবারের নির্বাচনে মানিকগঞ্জ-২ (সিঙ্গাইর, হরিরামপুর ও সদরের একাংশ) আসনে ট্রাক প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী দেওয়ান জাহিদ আহমেদ টুলুর কাছে হেরে গেছেন তিনবারের এমপি কণ্ঠশিল্পী মমতাজ বেগম।

রোববারের নির্বাচনে মোট ১৯৩টি ভোটকেন্দ্রে ট্রাক প্রতীকে স্বতন্ত্র প্রার্থী দেওয়ান জাহিদ আহমেদ টুলু পেয়েছেন ৮৪ হাজার ৫২৫ ভোট। অন্যদিকে নৌকা প্রতীকে মমতাজ বেগম পেয়েছেন ৭৮ হাজার ২৬৯ ভোট।