বাণিজ্য মেলায় প্রতারণা করলেই ব্যবসায়ীদের স্টল বরাদ্দ বাতিল

56

অহিদুর রহমান: পূর্বাচলে ২৮তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা শুরু হচ্ছে কাল (২১ জানুয়ারি) রোববার। মেলার সার্বিক নিরাপত্তা এবং মেলায় আগত দর্শনার্থীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে মেলা প্রাঙ্গণে পর্যাপ্ত আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী মোতায়েন থাকবে। এছাড়াও ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের একাধিক মনিটরিং জোরদার থাকবে।

শনিবার (২০ জানুয়ারি) পূর্বাচলে বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ চায়না ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারে মেলা পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলন করা হয়। এ সময় বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম টিটু এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, এবারের বাণিজ্য মেলায় ভোক্তা অধিদপ্তরের একাধিক মনিটর জোরদার থাকবে। কোন ব্যবসায়ী অতিরিক্ত মুনাফা কিংবা প্রতারণার প্রমাণ পেলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে এবং মেলায় তাদের স্টল বাতিল করা হবে।

বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, পণ্যের বাজার সৃষ্টির জন্য আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার আয়োজন। রপ্তানিকে বহুমুখীকরণের মাধ্যমে রপ্তানি বাড়ানোই বাণিজ্য মেলার মূল উদ্দেশ্য।

তিনি আরো বলেন, সরকারের মেগা প্রকল্প মেট্রোরেল ও এলিভেটেড এক্সপ্রেস হওয়ার কারণে ঢাকার মানুষ খুব সহজেই এবার মেলাতে পৌঁছাতে পারবে। রাজধানীর ফার্মগেট এবং কুড়িল বিশ্বরোড থেকে বিআরটিসি পরিবহনে করে দর্শনার্থীরা মেলায় যাতায়াত করতে পারবে।

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন বাণিজ্য সচিব তপন কান্তি ঘোষ।

তিনি বলেন, অন্যান্য বারের তুলনায় এবারের মেলায় বিভিন্ন প্রযুক্তি সংযোজন করা হয়েছে। খাদ্যদ্রব্যের মান নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের পৃথক বুথ সংযোজন করা হয়েছে। দর্শনার্থীদের সকল প্রকার তথ্য প্রদানের জন্য একটি তথ্য কেন্দ্র সংযোজন করা হয়েছে।

মেলায় দর্শনার্থীদের কথা চিন্তা করে কয়েকটি ব্যাংকের একাধিক বুথ স্থাপন করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, মেলায় কার পার্কিংয়ের জন্য দ্বিতল কার পার্কিং বিল্ডিং যেখানে পাঁচ শতাধিক গাড়ির পারকিং সুবিধা রয়েছে। এক্সিবিশন হলের বাইরে ৬ একর জমিতে বিস্তর পার্কিংয়ের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

অন্যদিকে আগামীকাল রোববার ২৮ তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা ২০২৪ উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মেলার প্রবেশ টিকেট মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে প্রাপ্তবয়স্ক ৫০ টাকা এবং শিশুদের (১২) বছরের নিচে ২৫ টাকা।

তবে মুক্তিযোদ্ধা ও প্রতিবন্ধীগন তাদের কার্ড প্রদর্শনপূর্বক বিনামূল্যে মেলায় প্রবেশ করতে পারবেন। মেলার টিকেট অনলাইনেও বিক্রি করা হবে। এছাড়াও প্রতিবারের মতো বিকাশের মাধ্যমে ডিসকাউন্টে টিকেট বিক্রি করা হবে।