বাউফলে বিএনপির চার নেতাকর্মী গ্রেপ্তার

13

বাউফল প্রতিবেদক: নাশকতা, নৈরাজ্য ও অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টির পরিকল্পনার অভিযোগে পটুয়াখালীর বাউফলে চার নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বুধবার রাতে উপজেলার বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। বৃস্পতিবার (২ নভেম্বর) বেলা পৌনে ১২টার দিকে তাদের বিশেষ ক্ষমতা আইনে দায়ের করা মামলা আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এটিএম আরিচুল হক।

পুলিশ জানায়, নাশকতার চেষ্টা পরিকল্পনার অভিযোগে বুধবার রাতে উপজেলার কাছিপাড়া ইউনিয়নের ৩নম্বর ওয়ার্ড ছাত্রদলের সাধারন সম্পাদক আল আমিনকে গ্রেপ্তার করা হয়। একই রাতে মনদপুরা ইউনিয়নের চন্দ্রপাড়া গ্রাম থেকে বিএনপি কর্মী জামাল ব্যাপারী, একই গ্রামের ছাত্রদল কর্মী মেহেদী হাসান ও নওমালা ইউনিয়ন ছাত্রদলের সদস্য সোহেল হাওলাদারকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এর আগে গতরবিবার (২৯ অক্টোবর ) রাতে বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের ৮ নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করে বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলায় আদালতে কারাগারে প্রেরণ করা হয়।

উপজেলা বিএনপির শীর্ষ নেতারা বলছেন, ক্ষমতাসীন দল পুলিশ বাহিনীকে ব্যবহার করে মিথ্যা অভিযোগ ও গায়েবী মামলা বিএনপি নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার করছেন। বাড়িতে বাড়িতে তল্লাশি করে আতঙ্ক সৃষ্টি করছেন। মামলা ও গ্রেপ্তারের ভয়ে বিএনপি নেতারা পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। সবার মাঝে গ্রেপ্তার আতঙ্ক বিরাজ করছেন।

উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব আপেল মাহমুদ ফিরোজ বলেন,‘ সারাদেশের মানুষ রাস্তায় নেমে গেছে। আওয়ামী লীগের আর অবৈধভাবে ক্ষমতায় থাকার সুযোগ নেই। গ্রেপ্তার আর মামলা দিয়ে সরকার পতনের আন্দোলন থামানো যাবে না।

বাউফল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এটিএম আরিচুল হক প্রিয়দেশ নিউজ কে বলেন, নাশকতা ও অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টির পরিকল্পনার অভিযোগে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে। কাউকে হয়রানি করা পুলিশের কাজ নয়, আমরা আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে কাজ করছি।