পদ্মায় ডুবে যাওয়া বন্ধুকে বাঁচাতে গিয়ে দুই বন্ধুর মৃত্যু

রাজশাহীর বোয়ালিয়ায় পদ্মা নদীতে গোসল করতে নেমে এক বন্ধুকে উদ্ধার করতে গিয়ে পানিতে ডুবে অপর দুই বন্ধুর মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে বোয়ালিয়া থানার বড়কুঠি এলাকায় তারা গোসল করতে নেমে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলো বড়কুঠি এলাকায় সারিক আলী ছেলে ও লোকনাথ স্কুলের শিক্ষার্থী নিরব (১৫) এবং একই এলাকার সায়েদ আলীর ছেলে ও শাহিন শিক্ষাবোর্ড মডেল স্কুলের অষ্টম শ্রেণির ছাত্র শাহিন (১৬)।

বোয়ালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাজহারুল ইসলাম জানান, বড় কুঠির কাছে পদ্মা নদীতে নিরব, শাহিন ও সাজেদ এই তিন বন্ধুসহ আরও ১০ জন গোসল করছিল। এদের মধ্যে হঠাৎ সাজেদ পানিতে ডুবে যায়। তাকে বাঁচাতে যায় নিরব ও শাহিন। এ সময় সাজেদকে উদ্ধার করতে তারা দুজন পানিতে ডুবে যায়। সাজেদ পরে উঠে আসে।

ওসি জানান, খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থল থেকে নিরব ও শাহিনকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন। তারা তিনজনের কেউ সাতাঁর জানে না।

আইনী প্রক্রিয়া শেষে পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হবে বলে জানান তিনি।