কেশবপুর ইউপি নির্বাচন: বিপুল ভোটে অপুর অটোরিকশার জয়

21

বাউফল (পটুয়াখালী) প্রতিবেদক: পটুয়াখালীর বাউফলে কেশবপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচনে বেসরকারিভাবে প্রাপ্ত ফলাফলে বিপুল ভোটের ব্যবধানে অটোরিকশা প্রতীকের এনামুল হক অপু নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি পেয়েছেন ৭৪৩৯ ভোট। তার নিটকতম প্রতিদ্ব›দ্বী তার নিকটতম প্রার্থী আ. মালেক মিয়া ঘোড়া প্রতীকে পেয়েছেন ৩২৯০ ভোট। ৪১৪৯ ভোটের ব্যবধানে অপু চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

শনিবার (৯মার্চ) সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে চলে ভোটগ্রহণ। ভোটগণনা শেষে এ ফলাফল ঘোষণা করেন রিটানিং অফিসার ও উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো.শাহীন শরীফ।

তিনি জানান, মোট ভোটার ২৫,২৯০ জন। এদের মধ্যে ১৩,০৭০ পুরুষ ও ১২,২২০ জন নারী ভোটার। নির্বাচনে ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন ১২, ৫৬৬জন। ৭৪৩৯ ভোট পেয়ে এনামুল হক অপু চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

এদিকে সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীন ভাবে ভোটগ্রহণ চলে। শান্তিপূর্ণ পরিবেশে চলে ভোটগ্রহণ। সারাদিনে কোনো কেন্দ্রে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। ভোটগ্রহণের শেষ সময়ের দিকে জাল ভোট দেওয়ার অভিযোগে এক সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার ও এক এজেন্টকে ৭দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। শনিবার বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে উত্তর মমিনপুর এ.এইচ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে।

কর্তব্যরত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও দশমিনা উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ওয়াসিউজ্জামান চৌধুরী জানান, উত্তরমমিনপুর এ. এইচ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার বশির উদ্দিন অটোরিকশা প্রতীকের এজেন্ট নাহিদকে সাথে নিয়ে ৭টি জাল ভোট দেওয়ার সময় তাদের হাতেনাতে আটক করা হয়। যা দণ্ডবিধি ১৮৬০ এর আওতায় ১৭১ (চ) ধারায় অপরাধ। এ কারনে তাদের দুজনকে ৭দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়েছে।

রিটানিং অফিসার মো. শাহীন শরীফ বলেন, ভোট সুষ্ঠু হয়েছে। সাধারন ভোটারেরা নির্বিঘ্নে ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন। যে ঘটনাটি ঘটেছে তা বিচ্ছিন্ন ঘটনা। এছাড়া নির্বাচনের সার্বিক পরিস্থিতি ভালো ছিল।