অবৈধ জাল দিয়ে মাছ শিকার, ১৪ জেলে আটক

27

বাউফল (পটুয়াখালী) প্রতিবেদক: পটুয়াখালীর বাউফলের তেঁতুলিয়া নদীতে অবৈধ বেহুন্দি জাল দিয়ে মাছ শিকারের দায়ে ১৪ জেলেকে নৌ পুলিশ।

আটককৃতদের মধ্যে ২জন জেলেকে ৫ হাজার টাকা করে অর্থদণ্ড, অপ্রাপ্ত বয়ষ্ক হওয়ায় এক কিশোরকে মুক্তি ও বাকিদের ১ বছর করে জেল দেওয়া হয়েছে।

শনিবার (৩০ মার্চ) উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. বশির গাজী ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে এ সাজা দেন।

কালাইয়া নৌ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. লুৎফার রহমান জানান, বাউফলের তেঁতুলিয়া নদীর রিজির মায়ের ভাড়ানি এলাকায় দীর্ঘদিন থেকে অর্ধশতাধিক নিষিদ্ধ বেহুন্দি জাল দিয়ে মাছ শিকার করা হচ্ছে। ভোলা ও বাউফলের কতিপয় দাদন ব্যবসায়ীর শেল্টারে অসাধু জেলেরা বেপরোয়াভাবে বেহুন্দি জাল দিয়ে বিভিন্ন প্রজাতির মাছের রেনু শিকার করছে। গত রাতে কালাইয়া নৌ পুলিশের একটি টিম ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে ১৪ জন জেলেকে আটক করে। আটককৃতরা হলেন- শামিম (২৫), বজলুর রহমান (২১), আলমগীর (৪২), রাকিব (২১), আলমগীর (৪৮), সুজন (২১), মাসুদ মিয়া (৩২), রায়হান (১৯), আল আমিন (৩২), নাহিদ (১৭), আবুল কাশেম (৬০), আমিন (৪৫), ছবু (৪০)ও রহিম (৩২)। এরা সবাই ভোলার লালমহনের বাসিন্দা।

উপজলো নির্বাহী অফিসার মো. বশির গাজী বলেন, মৎস্য সংরক্ষণ আইন ১৯৫০ এর ৪ ধারায় রাকিব ও সুজন নামে দুজনকে ৫ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেওয়া হয়েছে। নাহিদ নামে একজন অপ্রাপ্ত বয়ষ্ক হওয়ায় মুচলেকা রেখে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। বাকি প্রত্যেককে ১ বছর করে সশ্রম কারাণ্ড প্রদান করা হয়। তাদের জেল হাজতে প্রেরণ করা হবে।